২০১১-এ সারা বিশ্ব প্রত্যক্ষ করেছিল আরব স্প্রিং। তারপর থেকে সারা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে নানা সময়ে চলেছে প্রতিবাদ ও আন্দোলন ন্যায়ভিত্তিক সমাজ, দুর্নীতি থেকে স্বাধীনতা, মৌলবাদ থেকে স্বাধীনতা, অর্থনৈতিক অসমতা থেকে স্বাধীনতা, মহিলাদের ওপর নৃশংসতার থেকে স্বাধীনতা ও ফ্যাসিস্ট শক্তি থেকে স্বাধীনতার দাবীতে। সাম্প্রতিককালে ভারতে ধর্ষণের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ চলে দিল্লী বাস গণধর্ষণের পরে। কিন্তু এই মুহূর্তে বাংলাদেশে একটি অন্যরকমের বিদ্রোহ চলছে। সেটি হল একটি ধর্মনিরপেক্ষ বাংলাদেশের জন্য যুদ্ধ, ইসলামী ও মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে একটি যুদ্ধ, সেই সব মানুষদের বিচার এবং প্রাণদণ্ডের জন্য রণহুঙ্কার যারা ১৯৭১-এর বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের সময় নারী ও পুরুষদের ওপর  অনির্বচনীয় ও ভয়াবহ অত্যাচার করেছিল। ইজিপ্টে ছিল তাহির স্কোয়ার, বাংলাদেশে আছে শাহবাগ। ২০১৩ শাহবাগ আন্দোলন, যেটি শাহবাগের প্রতিবেশী শহর ঢাকাতেও ছড়িয়ে পড়ে, শুরু হয় ফেব্রুয়ারি ৫, ২০১৩তে। পরে সেটি বাংলাদেশের অন্যান্য প্রান্তে ছড়িয়ে পড়ে। আন্দোলনকারীদের দাবী আবুল কাদের মোল্লা সহ বাকি যতজন ১৯৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের জন্য অভিযুক্ত হয়েছেন, তাদের মৃত্যুদণ্ড। একই দিনে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল আবুল কাদের মোল্লাকে, যিনি মিরপুরের কসাই বলে পরিচিত, আজীবন কারাবাসের শাস্তি শোনায়। পরে বাংলাদেশ জামাত-এ-ইসলামীকে রাজনীতি থেকে নিষিদ্ধ করার দাবীও ঘনীভূত হয়। 

Picture of the day
লীগ নেতৃবৃন্দদের সাথে হাসিনা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মে ৩০, ২০১৩ গণভবনে মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দদের সাথে মতবিনময় করেন।