Bangladesh
কোনও দল নির্বাচনে না এলে কিছু করবার নেইঃ হাসিনা

19 Feb 2018

#

ঢাকা, ফেব্রুয়ারি ১৯ঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দিয়েছেন যে খালেদা জিয়া ও ওনার বিএনপি যদি নির্বাচনে না আসেন তাহলে ওনার কিছু করার নেই।

উনি বলেন সংবিধান অনুযায়ী নিরবাছ অনুষ্ঠিত হবে।

 

" এবারও যদি কোনো দল নির্বাচনে না আসে, তাহলে আমাদের কী করার আছে? কোন দল নির্বাচন করবে, কোন দল নির্বাচন করবে না—সেটা তাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত। কেউ যদি বলে নির্বাচন করতে দেব না, তাহলে সেটা তাদের গায়ের জোরের কথা। সময় মতো, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে," সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন হাসিনা।

 

সরকারি বাসভবন গণভবনে ইতালি সফর শেষে  আজ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন হাসিনা।

 

উনি বলেন জিয়ার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছে আদালত ও এই বিষয় সরকারের কিছু করার ছিল না।

 

" খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছিল দুদক। আর আদালত রায় দিয়েছে। সেখানে সরকারের কিছু করার নেই," হাসিনা বলেন।

 

উনি বলেনঃ " এতিমের টাকা মেরে খেলে  শাস্তি, এটা আদালতও দেয়, আল্লাহর তরফ হতেও দেয়। আমাদের তো কিছু করে নাই।"

 

কড়া নিরাপত্তার মধ্যে, ফেব্রুয়ারি ৮ দেশের এক আদালত বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে বিদেশ থেকে জিয়া এতিমখানা ট্রাস্টের নামে আসা দুই কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।



এই রায়  দিয়েছেন পুরান বকশীবাজারে জনাকীর্ণ আদালতে খালেদার উপস্থিতিতে ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আখতারুজ্জামান।

 

রায়কে ঘিরে দেশজুড়ে ছিল টান টান উত্তেজনা।

 


দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই দিনকে মাথায় রেখে নিরাপত্তা ব্যবস্থা কঠোর করা হয়।



বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মাগুরার সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদের এই মামলায় আদালত দিয়েছেন  দশ বছরের কারাদণ্ড।



বিচারক এই মামলায় প্রত্যেককে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে।



ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয় জিয়াকে।

 


হাসিনা বলেন  আগাম মার্চের যে কোনো সময় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশে যাবে।

 

সাংবাদিকদের উনি বলেন যে প্রশ্নফাঁস যারা করছে তারদের খুজে বার কয়রা হলে সরকার শাস্তি দেবে।

 

" প্রশ্ন ফাঁস নতুন কিছু না, কখনও প্রচার হয়, কখনও প্রচার হয় না," হাসিনা বলেন।

 

" প্রশ্নফাঁস হয় পরীক্ষার ২০ মিনিট আগে। কার এমন ফটোজেনিক মেমোরি আছে যে, প্রশ্ন দেখে ২০ মিনিটে সবকিছু মুখস্থ করে লিখে ফেলে?," উনি বলেন।




Video of the day
More Bangladesh News
Recent Photos and Videos

Web Statistics