Bangladesh
বিএনপি মনোনয়ন বাণিজ্যের রেকর্ড করেছে: কাদের

Bangladesh Live News | @banglalivenews | 05 Dec 2018

BNP has made commercial success by nominations
নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা, ডিসেম্বর ৫: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে বিএনপি এবার মনোনয়ন বাণিজ্যের রেকর্ড করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন তিনি।
যাচাই-বাছাইয়ে বিএনপির অনেক প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হওয়া সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ২৭৮ জনের মনোনয়ন টিকেছে আর বিএনপির টিকেছে ৫৫৫ জন। তাহলে মনোনয়ন কার বেশি টিকেছে। নির্বাচনে তো অংশ গ্রহণ করবে ৩শ জন। এর মধ্যে ঐক্যফ্রন্টকে দিতে হবে না?


আমরা বিশ্বস্ত সূত্রে খবর পেয়েছি, গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ছে বিএনপি মনোনয়ন বাণিজ্যে এবার রেকর্ড করেছে। এই যে এসব প্রার্থী ঋণখেলাপির কারণে মনোনয়ন বাতিল হয়েছে, তারপর এখনও ৫৫৫ জন রয়েছে। এটা কি মনোনয়ন বাণিজ্য নয়? তিনি বলেন, কোনো কোনো শীর্ষ নেতা ঢাকা থেকে পালিয়ে গেছে। যাদের থেকে টাকা নিয়েছে তারা এখন বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ধর্না দিচ্ছে। এলাকায় গিয়ে তারা এখন এই মুহূর্তে প্রতিনিয়ত নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করছে, মনোনয়ন বাণিজ্যের টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে, এরকম খবরও আমরা পাচ্ছি। বিএনপির শীর্ষ নেতাদের মনোনয়ন বাতিল করে সরকার পুতুল নাচের খেলা আয়োজন করেছে, বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীয় এমন বক্তব্যের জবাব জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের মনোনয়ন প্রক্রিয়াটাই একটা পুতুল নাচের খেলা। সরকার কেন করবে? নির্বাচন কমিশন কি সরকার?


ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন কমিশন স্বাধীন কর্তৃত্বপূর্ণ আচরণ করে যাচ্ছে। পুতুল নাচের খেলা, যেমনি নাচাও তেমনি নাচে। কামাল হোসেন তো নামকাওয়াস্তে নেতা, অনেক দুঃখে কষ্টে নির্বাচনটাই করছেন না। নেতাও নেই মাথাও নেই এই দলকে কে ভোট দেবে। মানুষ জিজ্ঞেস করবে কে হবেন প্রধানমন্ত্রী? কি জবাব দেবেন মির্জা ফখরুল সাহেব? তিনি বলেন, যখন নির্বাচন কমিশন তাদের পক্ষে না থাকে তখন তো নির্বাচন কমিশন সৎ মা হয়ে যায়।


তিনি বলেন, বিএনপি একটা বড় দল গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে থাকলে আমাদের কোনো ক্ষতি নেই। গণতন্ত্র দুই চাকার বাই সাইকেল। একদিকে সরকারি দল অন্যদিকে অপজিশন। অপজিশনকে বাদ দিয়ে তো সংসদীয় গণতন্ত্র হয় না। কাজেই এখানে আমাদের কোনো সমস্যা নেই। জিয়া পরিবারই বঙ্গবন্ধু পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য সব ধরনের চক্রান্ত ষড়যন্ত্র করেছে। যা হচ্ছে আদালতের আদেশে হচ্ছে, এখানে কোনোভাবে আমরা তাদের হয়রানি, হুমকি দিতে যাইনি।




Video of the day
More Bangladesh News
Recent Photos and Videos

Web Statistics