Bangladesh
রোহিঙ্গাদের এনআইডি করে দিয়ে এক বছরেই কোটিপতি জয়নাল

Bangladesh Live News | @banglalivenews | 19 Sep 2019

Major decision on NID issue
নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা, সেপ্টেম্বর ১৯ : রোহিঙ্গাদের এনআইডি করে দিয়ে এক বছরেই কোটিপতি হয়েছেন জয়নাল (গোল চিহ্নিত)। রোহিঙ্গা নারী লাকি আক্তারের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) পাওয়া নিয়ে অনুসন্ধানে নেমে বেরিয়ে আসছে একের পর এক চমকপ্রদ তথ্য। পুরো ঘটনায় মধ্যমণি হয়ে কাজ করেছেন ডাবলমুরিং থানা নির্বাচন অফিসের অফিস সহায়ক মো. জয়নাল আবেদীন।

চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসের এক কর্মকর্তা বলেন, রোহিঙ্গাদের এনআইডি পাইয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে অন্যতম ভূমিকা পালন করা জয়নাল আবেদীন তার এক মামার মাধ্যমে ২০০৪ সালে নির্বাচন কমিশনে অফিস সহায়ক হিসেবে নিয়োগ পান। সেই বছরই দেড় কোটি ভুয়া ভোটার ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার কারণে জয়নালের মামাকে ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করা হয়। কিন্তু নিজের মামা নির্বাচন কমিশনের বড় কর্তা হওয়ার সুবাদে দায়িত্ব পালনকালে অফিসে জয়নালের আচরণ ছিল বেপরোয়া।

 

জয়নাল আবেদীনের অন্তত ১০ স্বজন ঢাকা-চট্টগ্রামসহ নির্বাচন কমিশনের বিভিন্ন দফতরে চাকরি করছেন। এর মধ্যে কক্সবাজার নির্বাচন অফিসের অফিস সহায়ক মোজাফফর রোহিঙ্গাদের চট্টগ্রামে জয়নালের কাছে পাঠাতেন। চট্টগ্রামে নিয়ে আসতেন জয়নালের আরেক স্বজন জাফর ও তার আরেক সহযোগী নজিবুল আমিন।

 

চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জাগো নিউজকে বলেন, রোহিঙ্গাদের এনআইডির জন্য চট্টগ্রামে থেকে ছবি, আঙুলের ছাপসহ প্রয়োজনীয় সব কিছু ডাবলমুরিং থানা নির্বাচন অফিসের অফিস সহায়ক মো. জয়নাল আবেদীন সরবরাহ করতেন। এক্ষেত্রে তিনি ছুটির দিনে অফিস থেকে নিয়ে আসা ওয়েবক্যাম, ফিঙ্গার প্রিন্ট নেয়ার যন্ত্র, স্ক্যানার, সিগনেচার প্যাড বাসায় ব্যবহার করতেন। জয়নালের চাকরি অফিস সহায়ক হলেও থাকতেন ফ্ল্যাট বাসায়। নগরের সাব-এরিয়া এলাকায় জয়নালের বাসা ছিল ‘মিনি সার্ভার স্টেশন’।

 

তিনি জানান, রোহিঙ্গাদের ভোটার করার কাজে তাকে তার স্ত্রী ছাড়াও সৈকত বড়ুয়া, শাহজামাল, পাভেল বড়ুয়া, বয়ান উদ্দিন নামের চার ব্যক্তি সহযোগিতা করতেন। তবে ডাটা ইনপুটের কাজ করতেন নির্বাচন কমিশনের সাবেক দুই কর্মচারী সাগর ও সত্যসুন্দর দে। রোহিঙ্গাদের জন্য প্রতিটি জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) বানাতে জয়নাল ৫০-৬০ হাজার টাকা নিতেন।

 

নিজ গ্রামে কয়েক কোটি টাকা ব্যয়ে পাঁচতলা বাড়ি নির্মাণের কাজ চলছে চট্টগ্রামের ডাবলমুরিং থানা নির্বাচন অফিসের অফিস সহায়ক মো. জয়নাল আবেদীনের।

 

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে জয়নাল জানিয়েছে, এক বছরের বেশি সময় ধরে সে রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকায় নিবন্ধনের কাজ করছে।




Video of the day
More Bangladesh News
Recent Photos and Videos

Web Statistics