Bangladesh
অদ্ভুত দেশ সৌদি আরব : এখনও অন্ধকার যুগ

Bangladesh Live News | @banglalivenews | 20 Oct 2019

Saudi Arabia still in darkness
নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা, অক্টোবর ২০ : সৌদি আরবে কঠোর শরিয়া আইন বলবৎ। তবে তা শুধু প্রবাসী বা বিদেশীদের জন্য। সেদেশে ব্যাভিচারের শাস্তি পাথর ছুড়ে হত্যা। তবে এই আইন সৌদিদের জন্য বলবৎ নয়।

শুধু তাই নয়, যেসব গৃহকর্মী বিদেশীদের লালসার শিকার হয়, তাদেরকেই মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়। তারা অনেক কঠিন আইন করে রেখেছে, কিন্তু নিজেদেরকে তা থেকে মুক্ত রাখে। সেখানে গৃহকর্মীদের অনাহারে রাখা, বেতন না দেয়া এবং তাদের ওপর বাপ-বেটায় মিলে পাশবিক নির্যাতন-চালানো ফ্যাশান হয়ে দাঁড়িয়েছে। অথচ এসব বিষয়ে বিচার চাইতে গেলে উল্টো বিচার প্রার্থীকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়। এমন উদ্ভট একটি মুসলিম ধনি দেশে নারি কর্মী পাঠিয়ে বিপদে পড়েছে দেশ।


সম্প্রতি সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরা এক নারী বলেন, ‘প্রতি রাতেই আমার শরীরের ওপর চলত নির্যাতন। প্রতিবাদ করলেই মারধর। একপর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে পড়তাম। কিন্তু তাতে তারা থেমে যেত না। ওই অবস্থায়ই শরীরের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ত। জ্ঞান ফিরলে বুঝতে পারতাম সেটা।’ সঙ্গে আরও ১১১ নারী দেশে ফেরেন। তাদের সাক্ষাৎকার নিয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।


পরে সেই প্রতিবেদন সংসদীয় কমিটিতে উপস্থাপন করা হয়। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশে ফেরা ১১১ নারীর মধ্যে ৩৮ জন যৌন নির্যাতনের কারণে দেশে ফিরতে বাধ্য হন। এছাড়া ৪৮ জন নিয়মিত বেতন-ভাতা না দেয়ায়, পর্যাপ্ত খাবার খেতে না দেয়ায় ২৩ জন, চারজন ছুটি না দেয়ায়, মালিক ছাড়া অন্য বাড়িতে কাজ করানোর জন্য সাতজন, ১০ জন অসুস্থতার কারণে, পারিবারিক কারণে একজন, ভিসার মেয়াদ না থাকায় আটজন, দুই বছরের চুক্তি শেষ হওয়ায় ১৬ জন এবং অন্যান্য কারণে দুজন ফিরে আসেন।
যৌন নির্যাতনের শিকার এসব নারীর কথায় ফুটে উঠেছে নির্মম প্রহরের বর্তনা। তারা বলছেন, সুস্থ মানুষ হিসেবে সৌদি যাওয়ার পর মাত্র কয়েক মাসের ব্যবধানে অসুস্থ হয়ে ফিরতে হয়েছে। ‘কাজ করতে গিয়ে কেন আমাকে নির্মম নির্যাতনের শিকার হতে হলো’- প্রশ্ন করেন ওই নারী।


শুরুতে ওই নারী বলেন, রিক্রুটিং এজেন্সি আমাকে ৪০ হাজার টাকার বিনিময়ে সৌদি আরবে পাঠায়। প্রথম এক বছর দেড় মাস একটি বাসায় কাজ করি। তারা নিজেদের বাসা ছাড়া আত্মীয়দের বাসায় নিয়েও কাজ করাত। অথচ তিনবেলা ঠিক মতো খেতে দিত না। এমনকি এত কাজ করার পরও বেতন পেতাম না। দেশে থাকতে আমাকে দালালরা বলেছিল ২০ হাজার টাকা বেতন দেবে।’




Video of the day
More Bangladesh News
Recent Photos and Videos

Web Statistics