Muktijudho

রাজাকারদের তালিকা তৈরিতে সংসদে নতুন বিল, বিএনপির বিরোধিতা সংসদের অধিবেশন
ছবি: পিআইডি রোববার বাজেট অধিবেশনের শুরুতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়

রাজাকারদের তালিকা তৈরিতে সংসদে নতুন বিল, বিএনপির বিরোধিতা

Bangladesh Live News | @banglalivenews | 06 Jun 2022, 06:33 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা, ৬ জুন ২০২২: রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস বাহিনীসহ স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা তৈরির আইনি বাধা কাটছে। এ সংক্রান্ত তালিকা তৈরির বিধান রেখে ‘জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল বিল-২০২২’ সংসদে উত্থাপন করা হয়েছে।

রোববার (৫ জুন) মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বিলটি সংসদে উত্থাপন করলে পরে তা সাত কার্যদিবসের মধ্যে পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

বিলটি উত্থাপনের আপত্তি জানান বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ। তিনি খসড়া আইনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও আদর্শের সংজ্ঞা অন্তর্ভুক্ত করার দাবি করেন। এছাড়া, মুক্তিযোদ্ধার সংজ্ঞাও বিলে অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানান।

বিলটিকে ‘অসম্পূর্ণ’ আখ্যা দিয়ে এমপি হারুন বলেন, যারা বিদেশে ছিল, ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল তাদেরও মুক্তিযোদ্ধা সনদ দেওয়া হচ্ছে। এটা বিব্রতকর। মুক্তিযুদ্ধের সময় তার পরিবারের ভূমিকা তুলে এ সংসদ সদস্য বলেন, তখন তার বয়স ছিল ১০ বছর। তিনিওতো নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা দাবি করতে পারেন।

এসময় হারুনের আপত্তির জবাব দেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। পরে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন এমপি হারুনের প্রস্তাবে ভেটো দিলে তা নাকচ হয়ে যায়। বিদ্যমান আইনে বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতাকারীদের তালিকা প্রকাশের বিষয়ে কিছু উল্লেখ নেই।

বিলে বলা হয়েছে, ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ থেকে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত যারা মহান মুক্তিযুদ্ধকালীন রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস বাহিনীর সদস্য হিসেবে বা আধা-সামরিক বাহিনীর সদস্য হিসেবে কর্মকাণ্ডে লিপ্ত ছিলেন বা আধা-সামরিক বাহিনীর সদস্য হিসেবে সশস্ত্র যুদ্ধে নিয়োজিত থেকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছেন বা খুন, ধর্ষণ, লুট, অগ্নিসংযোগের মতো অপরাধমূলক ঘৃণ্য কার্যকলাপের মাধ্যমে নিরীহ মানুষকে হত্যার মধ্য দিয়ে যুদ্ধাপরাধ সংগঠিত করেছেন অথবা একক, যৌথ বা দলীয় সিদ্ধান্তে প্রত্যক্ষ, সক্রিয় বা পরোক্ষভাবে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছেন তাদের তালিকা প্রণয়ন ও গেজেট প্রকাশের জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ প্রেরণ করবে।

উত্থাপিত বিলে আরও বলা আছে, কাউন্সিলের (জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল) সদস্য সংখ্যা ১২ জন করা হয়েছে। আগের আইনে ছিল ৯ জন। কাউন্সিলের প্রধান উপদেষ্টা হবেন প্রধানমন্ত্রী। কাউন্সিলের আটজন সদস্য প্রধান উপদেষ্টা মনোনয়ন দেবেন। যারা বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কোনো ব্যক্তি বা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য হবেন।

সর্বশেষ শিরোনাম

ভাষা সৈনিক বীর মুক্তিযোদ্ধা রণেশ মৈত্র আর নেই Mon, Sep 26 2022

একাত্তরের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি চান মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী Mon, Sep 19 2022

বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ভারতের বিদায়ী হাই কমিশনারের Sat, Sep 17 2022

মুক্তিযোদ্ধা-আমলা আকবর আলি খান আর নেই Fri, Sep 09 2022

মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ভারতীয় সেনাদের ২০০ স্বজন পেলেন মুজিব স্কলারশিপ Wed, Sep 07 2022

রাজাকারের তালিকা তৈরি করতে সংসদে আইন পাস Tue, Aug 30 2022

শুরুতে স্মার্ট আইডি পাচ্ছেন ২৪৭৬১ বীর মুক্তিযোদ্ধা Fri, Jul 29 2022

মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার Sun, Jul 24 2022

মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান-ডিজিকে হাইকোর্টে তলব Thu, Jul 21 2022

বঙ্গবন্ধুর ১৯ ফুট উঁচু ব্রোঞ্জের ভাস্কর্য হচ্ছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে Tue, Jul 12 2022