Archive
Title Description Posted Date
বাংলাদেশ থেকে উপড়ে ফেলতে হবে জামাতকে উনিশশো একাত্তর সালে স্বাধীনতা লাভের অব্যবহিত পরে নিষিদ্ধ ঘোষিত হওয়া জামাত-এ-ইসলা্মকে বাংলাদেশের প্রথম সামরিক শাসক এবং বি এন পি -র প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জেনারেল জিয়াউর রহমান পরবর্তীকালে ক্ষমতা দখল এবং নিজের অবস্থানকে দৃঢ় করার জন্য ইতিহাসের আস্তাকুঁড় থেকে আবার তুলে আনেন। সেই সময় দেশে প্রধান রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগকে রোখার জন্য জামাতকে পুনর্বাসন দিয়ে অকৃপনভাবে রাজনৈতিক জায়গা করে দেন তিনি। 28-Feb-2020
Jamaat has to be uprooted from Bangladesh It was none other than the first military ruler and BNP’s founder General Ziaur Rahman who, in his bid to capture and consolidate power, picked up from the dustbin of history Jamaat-e-Islami, which was banned as a political outfit soon after Bangladesh’s emergence as an independent nation in 1971. Ziaur Rahman rehabilitated Jamaat and gave it enough political space to counter the Awami League, the dominant political force at that time. 28-Feb-2020
বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে উত্তেজনা এবং মৃত্যু বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত বরাবর উত্তেজনা এবং মৃত্যুর ঘটনা প্রায়শই ঘটে থাকে। বেশিরভাগ সময়ই তা হয় বাংলাদেশের দিক থেকে অবৈধ ভাবে ভারতে প্রবেশ করার চেষ্টা করার পরিণতি হিসেবে । সীমান্তের দু'দিক থেকে গুলি বিনিময় এবং গরু পাচারের কারণেও এই উত্তেজনা এবং প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। পাচার এবং বাংলাদেশ থেকে অবৈধ প্রবেশ রুখতে ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সকে প্রায়ই গুলি চালাতে হয়। 25-Feb-2020
Tension and killings along Bangladesh-India border Tension and deaths along Bangladesh-India border occur frequently, mostly as a result of people illegally attempting to cross over to India from Bangladesh. Cross-border firing and cattle smugglings also contribute to such incidents of border tension and killings. Indian Border Security Force (BSF) has to frequently resort to firing mostly to prevent smuggling and stop illegal migration from Bangladesh. 21-Feb-2020
স্বাধীনতাসংগ্রামীর স্বীকৃতি পেলেন আরও ১৭ জন বীরাঙ্গনা ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার আরও ১৭ জন দুর্ভাগা ধর্ষিতাকে স্বাধীনতা সংগ্রামীর স্বীকৃতি দিল বাংলাদেশ সরকার। ডিসেম্বর ২৫, ২০১৯ তারিখে এই মর্মে একটি গেজেট নোটিফিকেশন জারি করা হয়েছে। ডিসেম্বর, ২০১৯-এ ঢাকায় বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাইটার্স কাউন্সিলের ৬৫তম বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এর ফলে অন্যান্য স্বাধীনতাসংগ্রামীদের সমতুল্য রাষ্ট্রীয় সুযোগ সুবিধা এবং ভাতার অধিকারী মহিলা স্বাধীনতাসংগ্রামীদের সংখ্যা ৩২২ থেকে বেড়ে হোল ৩৩৯। 21-Feb-2020
17 more Biranganas get recognition as freedom fighters 17 more unfortunate rape victims of 1971 Liberation war have been recognized by the Bangladesh government as freedom fighters. A gazette notification has been issued in this regard on December 25, 2019. The decision has been taken at the 65th meeting of Bangladesh Freedom Fighters Council, held in Dhaka in December 2019, taking the number of female freedom fighters from 322 to 339, entitling them to state facilities and allowances at par with the freedom fighters. 21-Feb-2020
Recent Photos and Videos

Web Statistics