Finance
স্বাভাবিক হচ্ছে সবজির বাজার

Bangladesh Live News | @banglalivenews | 30 Nov 2019

Bangladesh vegetable market is becoming normal
নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা, নভেম্বর ৩০ : দুই মাসের বেশি সময় ধরে ভোগাতে থাকা পেঁয়াজের দাম আবার ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা ছেড়ে কমতে শুরু করেছে। পাশাপাশি বেশ কিছু শীতকালীন সবজির দামও কিছুটা কমেছে। তবে এখনও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে শসা ও খিরা। নতুন আলু বাজারে এলেও বেড়েছে গণবছরের পুরোনো আলুর দাম। তবে কেন আলুর দাম বাড়ছে, সে প্রশ্নের কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি বিক্রেতারা।

আর দেশে নতুন পেঁয়াজ ওঠাসহ বিভিন্ন উৎস থেকে পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ায় দামও কিছুটা সহনশীলতার দিকে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।


শুক্রবার কারওয়ানবাজারে গিয়ে দেখা যায়, পাকিস্তানি পেঁয়াজ প্রতিকেজি ১৮০ টাকায়, দেশি পেঁয়াজ ২২০ টাকায়, চীনা পেঁয়াজ ১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কিছু কিছু দোকানে মুড়িকাটা পেঁয়াজও রয়েছে। দাম প্রতিকেজি ১৬০ টাকা।


জানা যায়, এক সপ্তাহে বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কিছুটা বেড়েছে। সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার আমদানি করা পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৫ টাকা থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। এদিন শ্যামবাজারে দেশি পেঁয়াজ প্রতিকেজি ২০০ টাকায়, মিয়ানমারের পেঁয়াজ প্রতিকেজি ১৭০ থেকে ১৭৫ টাকা, মিশরের পেঁয়াজ ১৩০ টাকা থেকে ১৩৫ টাকায়, চীনের পেঁয়াজ ৯৫ থেকে ১০০ টাকা এবং পাকিস্তানি পেঁয়াজ ১৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।


শুক্রবার রাজধানীর আগারগাঁও, মহাখালী ও কারওয়ান বাজারের সবজি বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মুলা, গাজর, বেগুন, শিমসহ বেশ কয়েকটি সবজির দাম গত দুই দিন ধরে কেজিতে সর্বোচ্চ ১০ টাকা করে কমেছে। কিছু সবজির দাম রয়েছে স্থিতিশীল। মুলা প্রতিকেজি ৩০ টাকা থেকে ৪০ টাকা, ফুল কপি প্রতিটি ৩০ থেকে ৪০ টাকা, মরিচের কেজি ৬০ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, শিম ৫০ টাকা, নলডাঙা সিম ৮০ টাকা, শসা ৭০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, বরবটি ৭০ টাকা, টমেটো ৮০ টাকা থেকে ১০০ টাকা, শালগম ৪০ টাকা, করলা ৮০ টাকা, চিচিঙ্গা ৬০ টাকা ও লাউ প্রতিটি ৩০ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এর মধ্যে মুলা, ফুল কপি, বেগুন ও শিমের দাম কেজিতে ১০ টাকা করে কমেছে।




Video of the day
More Finance News
Recent Photos and Videos

Web Statistics